বিদেশে বসেই খাঁটি মধু কিনুন এখন বাংলাদেশ থেকে

বিদেশে বসেই খাঁটি মধু কিনুন এখন বাংলাদেশ থেকে
বিদেশে বসেই খাঁটি মধু কিনুন এখন বাংলাদেশ থেকে

আপনি কি একজন প্রবাসী? আপনি কি বিদেশে বসেই বাংলাদেশ থেকে খাঁটি মধু কিনতে চান? তাহলে এই ব্লগপোস্টটি আপনার জন্যই। কারণ আজকে আপনাদের সাথে আছে আমি মধু বিক্রেতা আলামিন। আজকের এই আর্টিকেলে আমি দেখিয়েছি কিভাবে আপনারা বাংলাদেশ থেকে খাঁটি মধু কিনে, নিজের দেশে নিয়ে যাবেন।

মধু কিভাবে কিনবেন সেটা জানার আগে আরও কিছু তথ্য জেনে নেওয়া যাক

আমি যেহেতু কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে আমার মধু গুলো সারা বাংলাদেশে পৌঁছে দিচ্ছি এবং প্রচার মাধ্যম হিসেবে অনলাইনকে বেচে নিয়েছি যেমনঃ ব্লগ, ফেসবুক, ইউটিউব ইত্যাদি। তাই বাংলাদেশের বাইরেও অনেক প্রবাসী ভাই এবং বোনেরা আমার মধুর অ্যাড দেখে আমার কাছে ফোন দেন মধুর কেনার জন্য।

কিন্তু সমস্যা হলো দুই এক কেজি মধু বাংলাদেশের বাইরে কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে সরাসরি পাঠানোর সহজ কোন উপায় নাই। যদি অনেক বেশি পরিমাণ মধু হয় সে ক্ষেত্রে বিভিন্ন উপায়ে বাংলাদেশের বাইরে মধু পাঠানো সম্ভব।

এখানে আরেকটা বিষয় জেনে রাখা ভালো, মধু যেহেতু তরল জাতীয় খাবার এ জন্যই এত জটিলতা। মধু যদি কোনো তরল জাতীয় কিছু না হয়ে শক্ত জাতীয় কিছু হতো যেমন কাপড়-চোপড়, কাগজপত্র ইত্যাদি। এই জাতীয় কিছু হলে অবশ্যই খুব সহজেই সরাসরি বাংলাদেশ থেকে বিদেশে কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে মধু পাঠানো সম্ভব

জেনে নিনঃ সুন্দরবনের মধুর একটি অজানা তথ্য যা সকলের জেনে রাখা উচিত

তাহলে কিভাবে বাংলাদেশ থেকে বিদেশে মধু নিয়ে যাবেন?

এখন আমি যে উপায়টি বলব এই উপায়টি অবলম্বন করলে আপনি নিজেও বাংলাদেশ থেকে বিদেশে মধু নিয়ে যেতে পারবেন। এই উপায়টি অবলম্বন করে অনেকেই আমার কাছ থেকে মধু কিনে বিদেশে তাদের কাছে নিয়ে যাচ্ছেন। পদ্ধতিটি খুবই সহজ। একটু বললেই বুঝে ফেলতে পারবেন। কারণ আমি নিশ্চিত জানি আপনারা অনেক আগে থেকেই এই পদ্ধতি অবলম্বন করে বাংলাদেশ থেকে বিভিন্ন জিনিস পত্র আপনাদের নিজের কাছে নিয়ে যান।

বাংলাদেশ থেকে যখন আপনার পরিচিত কেউ আপনার দেশে যাবে তখন তাদের মাধ্যমে আমাদের এই মধু গুলা আপনাদের কাছে নিয়ে যেতে পারবেন। কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে মধু হাতে পেতে কম করে দুই থেকে পাঁচ  দিন লাগতে পারে। এজন্য সময়ের দিকে লক্ষ রেখে আগে থেকেই আমাদের কাছে অর্ডার দিয়ে দিতে হবে। এর পরে আমরা আপনার ওই লোকের কাছে মধু টা পাঠিয়ে দিব। তখন তিনি যাওয়ার সময় বাংলাদেশ থেকে আপনার মধুটা আপনার কাছে নিয়ে যাবেন।

এটাই হচ্ছে বর্তমান উপায়। ভবিষ্যতে যদি আরও সহজ কোন পদ্ধতি বের হয় তখন আপনারা ওই পদ্ধতি অবলম্বন করে বাংলাদেশ থেকে বিদেশে খাঁটি মধু নিয়ে যেতে পারবেন ইনশাআল্লাহ।

আরও পড়ুনঃ ২০১৯ সালের বেস্ট কোয়ালিটি সুন্দরবনের মধু কিনুন

আরও বিস্তারিত জানতে ভিডিওটি দেখুন


আশা করছি এই আর্টিকেল থেকে আপনি অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পেয়েছেন ইনশাআল্লাহ। এরকম আরো অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য জানতে খাঁটি মধু ডটকম অফিসিয়াল ওয়েবসাইট এ ভিজিট করুন অথবা ইউটিউব চ্যানেলের সাথে যুক্ত থাকতে পারেন। আশা করি মধু সম্পর্কিত অনেক তথ্য জানতে পারবেন যেগুলো হয়তো আপনি ইতিপূর্বে কখনোই জানতেন না।

এছাড়াও ফেসবুকে আমার সাথে যোগাযোগ করতে পারেন অথবা ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে একটিভ থাকতে পারেন। আর আমার সাথে সরাসরি মোবাইলে কথা বলতে আমার নাম্বারে কল দিতে পারেন। নাম্বার পেতে এখানে ক্লিক করুন

ধন্যবাদ আপনাদের সবাইকে।

Comments