লিচু ফুলের মধুর একটি অজানা তথ্য যা সকলের জেনে রাখা উচিত

litchi flower honey, লিচু ফুলের মধু
লিচু ফুলের মধুর একটি অজানা তথ্য যা সকলের জেনে রাখা উচিত

আমার কাছে যদি আপনি প্রশ্ন করেন, সবচেয়ে সুস্বাদু মধু কোনটি? আমি এক বাক্যে উত্তর দেবো, সুন্দরবনের মধু এবং লিচু ফুলের মধু। আমার কাছে যদি আবার প্রশ্ন করেন, কম দামে ভালো মানের মধু কোনটি? তখন আমি বলব লিচু ফুলের মধু।

হ্যাঁ বন্ধুরা, লিচু ফুলের মধু সত্যিই অসাধারণ একটি মধু। যেমন ঘন হয়, যেমন দেখতে হয়, তেমনি সুস্বাদু হয়। লিচু ফুলের মধু ব্যক্তিগতভাবে আমার খুবই প্রিয় একটি মধু। তবে এটাও মনে রাখা ভাল, পছন্দের ভিন্নতা আগেও ছিল এখনও আছে ভবিষ্যতেও থাকবে এটাই স্বাভাবিক।

আমি মধু বিক্রি এবং গবেষণা করতে গিয়ে যা বুঝলাম তা হচ্ছে, মধুর সঠিক তথ্য সম্পর্কে মানুষের জ্ঞানের পরিধি প্রায় শূন্যের কোঠায়। এজন্যই আমি আমার বিভিন্ন ভিডিও, বিভিন্ন লেখার মাধ্যমে আপনাদের সঠিক তথ্য দেওয়ার চেষ্টা করছি ইনশাল্লাহ।

আজকে আপনাদের সাথে আছি আমি মধু বিক্রেতা আলামিন। আজকে লিচু ফুলের মধু সম্পর্কে আমি এমন একটি গুরুত্বপূর্ণ তথ্য শেয়ার করব যে তথ্যটি সকলের জেনে রাখা উচিত। এখানে শুধু লিচু ফুলের মধুর তথ্যই না, সাথে সাথে আপনারা মধুর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিষয় সম্পর্কে জানতে পারবেন আজকের এই ব্লগপোস্ট থেকে ইনশাআল্লাহ।

মধুর বৈশিষ্ট্য সম্পর্কে জানা জরুরি কেন?

প্রথম কথা হচ্ছে, মধুর শুধু একটি গুরুত্বপূর্ণ তথ্য আমরা জানি না ব্যাপারটা এরকম না। মধুর অসংখ্য তথ্য আমাদের একদমই অজানা। তো আমি চেষ্টা করছি অসংখ্য অজানার মধ্যে থেকে খুব গুরুত্বপূর্ণ কিছু তথ্য আপনাদের মাঝে প্রচার করার জন্য। কারণ আপনি একটা জিনিস খেয়াল করেন, আপনি যদি বাজারে গিয়ে এমন একটা প্রোডাক্ট কিনতে চাচ্ছেন যে প্রোডাক্ট এর সাথে আপনার কোন পূর্ব অভিজ্ঞতা নাই কিংবা সঠিক কোন জ্ঞান নাই। এক্ষেত্রে কিন্তু এই প্রোডাক্টটা কিনতে গেলে আপনি প্রতারিত হতে পারেন অথবা ভালো পণ্য চিনে নাও কিনতে পারেন অথবা দোকানদার আপনাকে ঠকাতে পারে ইত্যাদি। কিছু একটা হতেই পারে এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু যে প্রোডাক্টটা আপনি কিনতে গেছেন ওই প্রোডাক্ট এর সঠিক জ্ঞান যদি আপনার আগে থেকেই থাকে, পূর্ব অভিজ্ঞতা যদি আগে থেকেই থাকে তাহলে কিন্তু আপনি ওই প্রোডাক্টটি কেনার সময় আপনার বিব্রতকর অবস্থায় পড়তে হবে না। আপনি নিঃসন্দেহে সঠিক জিনিসটা বাছাই করে কিনতে পারবেন ইনশাল্লাহ।

যদি আমরা মধুর বৈশিষ্ট্য সম্পর্কে সঠিক জ্ঞান অর্জন করতে পারি। তাহলে আমরা অবশ্যই আস্তে আস্তে আমরা নিজেরাই খাঁটি মধু চিনতে পারব এবং অসংখ্য ভেজালের ভিড়ে খাঁটি মধু নিজেরাই চিনে কিনতে পারব ইনশাল্লাহ। আর এটার জন্য আমি চেষ্টা করে যাচ্ছি। আমি বিভিন্ন ভিডিও বানিয়ে ইউটিউবে আপলোড করছি। বিভিন্ন ব্লগে লেখালেখি করছি। আমার ফেসবুকের প্রোফাইলে এবং পেজেও মধু সম্পর্কে বিভিন্ন তথ্য শেয়ার করছি। যাতে করে আমরা সকলেই মধুর সঠিক জ্ঞানে জ্ঞানি হতে পারি। ভেজালের মধ্য থেকে খাঁটি মধু চিনে কিনতে পারি ইনশাআল্লাহ।

মধু তিনটি গ্রেডের হয়

প্রথমে জেনে নেই, মধুর মধ্যে গ্রেট সিস্টেম আছে। এ গ্রেড, বি গ্রেড এবং সি গ্রেড। সবচেয়ে উৎকৃষ্ট, সবচেয়ে ভালো মানের মধু হচ্ছে "এ গ্রেডের মধু"। লিচু ফুলের মধু সাধারণত বি গ্রেড এবং সি গ্রেড এর হয়ে থাকে আমাদের দেশে।
এ গ্রেড বলা হয় যে মধুতে ১৮ থেকে ২০ শতাংশ পানি থাকে, সেটাকে এ গ্রেডের মধু বলা হয়। যে মধুতে ২১ থেকে ২৩ শতাংশ পানি থাকে, সেই মধুকে বি গ্রেডের মধু বলা হয়। এবং যে মধুতে ২৩ শতাংশ এর উপরে পানি থাকে, সেগুলোকে সি গ্রেড এর মধু বলা হয়।

লিচু ফুলের মধুর একটি গুরুত্বপূর্ণ তথ্য

লিচু ফুলের মধু তিতা হয়ে যায় - শুনতে অবাক লাগলেও এটাই বাস্তবতা। আমরা তো সব সময় জেনে এসেছি মধু অত্যন্ত মিষ্টি। আমি একটি বইতে পড়েছিলাম, মধু চিনির থেকে ২৫ গুণ বেশি মিষ্টি। তাই মধু আবার তিতা হবে এ কথা শুনতে একটু অবাকই লাগে!

লিচু ফুলের মধুর ক্ষেত্রে আমরা যেটা দেখি, লিচু ফুলের মধু প্রাকৃতিক ভাবে স্বাভাবিক ভাবেই এটা হালকা তিতা হয়ে যায়। কিন্তু এটা বুঝতে হবে কখন তিতা হয়? কত সময় পরে তিতা হয়? কারণ আমরা যেটা দেখি, মধু মাঠ থেকে সংগ্রহ করার পরে তো তিতা  থাকে না। মধু তিতা হয় অনেকদিন পরে। সেটা কত সময় পরে? এবং কোন গ্রেডের মধু বেশি তিতা হয়? কোন গ্রেডের মধু কম তিতা হয় সেটাও কিন্তু আমাদের জেনে রাখতে হবে। কারণ খুঁটিনাটি সমস্ত তথ্য যদি আমরা সঠিক ভাবে না জানতে পারি তাহলে কিন্তু আমরা ভুল ডিসিশন নিয়ে ফেলতে পারি। আর ভুল ডিসিশন নেওয়ার ফলে আমারা হয়তো আমাদের অজান্তেই খাঁটি মধুকে ভেজাল আর ভেজাল মধুকে খাঁটি বলে ফেলতে পারি।

আমরা যেটা দেখি, লিচু ফুলের মধু যদি সি গ্রেডের হয় কিংবা বিগ্রেডের হয় তাহলে সেটা প্রায় দুই থেকে চার মাসের ভেতরেই তিতা ভাব চলে আসে। আর যদি মধু অনেক বেস্ট কোয়ালিটির হয়। এ গ্রেডের হয়। সে ক্ষেত্রে এরকম তিতা ভাব হয়তোবা আসবে না। আর যদি আসে তাহলে সেটা অনেক বেশি সময় লাগবে এবং তার পরিমাণ টা খুবই সামান্য থাকবে, তবে কিছুটা তিতা অনুভূতি লাগবে এমনটাই আমরা দেখছি।

আরেকটি লক্ষণীয় বিষয় হলো, এখানে তিতা বলতে এমনটা ভাববেন না যে আপনি নিম পাতা বেটে রস খেতে যে তিতা অনুভব করেন এরকম তিতা না। মধু অবশ্যই মিষ্টি থাকবে তবে মধু খাওয়ার শেষের দিকে আপনার গলার মধ্যে মনে হবে কিছু একটা তিতা তিতা ভাব অনুভব হচ্ছে। খুবই সামান্য একটা অনুভূতি। এতোটুকুই।

মধু তিতা হতে কত সময় লাগে?

আসলে কত মাস পরে কেমন পরিমান তিতা হবে এটা বলা টা বেশ কঠিন একটা বিষয়। এটা নিয়ে যথেষ্ট গবেষণার দরকার আছে। আমার অভিজ্ঞতা যতটুকু ছিল সেটুকু শেয়ার করলাম আপনাদের মধুর ব্যাপারে সঠিক জ্ঞান বৃদ্ধির জন্য। ভবিষ্যতে যখন আমি এই টপিকটা নিয়ে আরও গবেষণা করব তখন আরও সঠিক তথ্য সুন্দরভাবে দেওয়ার চেষ্টা করব ইনশাল্লাহ। এখন এতোটুকুই মনে রাখবেন যে লিচু ফুলের মধু হালকা তিতা হয়ে যায়। আর আমাদের দেশে যেহেতু বি গ্রেড এবং সি গ্রেডের মধু বেশি বিক্রি হয় সে ক্ষেত্রে আপনারা সাধারণত তিতা ভাব পেয়ে যাবেন ইনশাআল্লাহ।

আলহামদুলিল্লাহ, আমি যখন থেকে বুঝতে শিখেছি যে মধুর মধ্যে কোয়ালিটি হয় যেমনঃ এ গ্রেড, বি গ্রেড এবং সি গ্রেড। এবং সবচেয়ে ভালো মানের মধু "এ গ্রেডের মধু"। আমি তখন থেকে চেষ্টা করছি এ গ্রেডের মধু সংগ্রহ করার জন্য। আলহামদুলিল্লা ২০১৯ সালে আমি সংগ্রহ করতে পেরেছি যেটা অত্যন্ত ভালো মানের বেস্ট কোয়ালিটির মধু। আপনারা চাইলে এটা সংগ্রহ করতে পারেন আমার কাছ থেকে। আমি কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে সারা বাংলাদেশ খাঁটি মধু পৌছে দিচ্ছি

উপসংহার

আজকের পোস্ট এ পর্যন্তই আশা করছি আপনারা অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য জানতে পেরেছেন ইনশাল্লাহ। আরও যদি কোন কিছু জানার থাকে তাহলে নিচের কমেন্ট বক্স থেকে কমেন্ট করতে পারেন অথবা আমার সাথে মোবাইলে সরাসরি কথা বলতে পারেন (মোবাইল নাম্বারঃ 01728-338765 / ইমো নাম্বারঃ 01869-663242)। আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ পোস্টটি পড়ার জন্য। আপনি চাইলে আমার আরও অন্যান্য পোস্ট গুলো পড়তে পারেন।

Comments